শিরোনাম:
●   ভোলায় অজ্ঞাতনামা যুবতীর রহস্যজনক মৃত্যু ●   ভোলায় আ”লীগের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ●   ভোলা জেলা আ’লীগের সভাপতি মজনু মোল্লা, সম্পাদক বিপ্লব ●   সাংবাদিক রফিক সাদীর দুই মেয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মেধা তালিকায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীর পুরস্কারে ভূষিত ●   চরফ্যাশনের মায়া নদী ভাঙ্গন রক্ষায় জিও ব্যাগ স্থাপনের দাবী ●   বেতন ছাড়ায় লাশ হয়ে বাড়ি ফিরলেন ভোলার হাবিবুর ●   ভোলায় বিসিকের গাছ কাটার ব্যাপারে জিজ্ঞেস করায় সাংবাদিকের সাথে উদ্যোক্তার অশোভন আচরণ ●   ভোলায় এনএসআই এর তথ্যের ভিত্তিতে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অনিয়ম করায় তিন পরীক্ষার্থীকে কারাদণ্ড, বহিষ্কার ২ ●   অনুসন্ধানী রিপোর্ট ১: ভোলায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় চাকরির প্রলোভনে কোটি টাকা হাতিয়েছেন প্রতারকরা ●   ভোলায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত, আহত ২
ভোলা, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯

ভোলার সংবাদ
মঙ্গলবার ● ১৭ মে ২০২২
প্রথম পাতা » চরফ্যাশন » চরফ্যাশনে চলাচলের রাস্তা কেটে নিলেন প্রভাবশালী, জিম্মি ২০০ পরিবার
প্রথম পাতা » চরফ্যাশন » চরফ্যাশনে চলাচলের রাস্তা কেটে নিলেন প্রভাবশালী, জিম্মি ২০০ পরিবার
২০৮ বার পঠিত
মঙ্গলবার ● ১৭ মে ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

চরফ্যাশনে চলাচলের রাস্তা কেটে নিলেন প্রভাবশালী, জিম্মি ২০০ পরিবার

---

চরফ্যাশন প্রতিনিধি: চরফ্যাশন উপজেলার হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড মাইনুদ্দিন মৎস্যঘাট এলাকার বেড়িবাঁধ সংলগ্ন নাছির মাঝির বাড়ির সম্মুখে সরকারি ১৬ ফুট প্রস্থ ২০০ ফুট দৈর্ঘ্যের দুইটি চলাচলের রাস্তা কেটে প্রায় সাড়ে ৪ফুট গভীর নালা তৈরী করেছেন ওই এলাকার প্রভাবশালী ইউনুস হাওলাদার এতে ভোগান্তিতে পড়েছে ঐ এলাকায় বসবাসকারী ২০০শত পরিবার। যার ফলে ওই রাস্তাটি দিয়ে স্থানীয় এলাকাবাসী চলাচল করতে না পেরে অন্যের বাগান ফসলি জমির মধ্য দিয়ে বাড়িতে যাওয়া আসা করতে হচ্ছে। ভূক্তভোগী এলাকাবাসীরা অভিযোগ করে বলেন, এই রাস্তা দিয়ে প্রায় ৩৫ বছর ধরে চলাফেরা করেছি। গত কয়েকদিন ধরে স্থানীয় প্রভাবশালী ইউনুস হাওলাদার কোনো কারণ ছাড়াই সরকারি রাস্তাটি কেটে তাঁর বাড়ির বাগানে জমিতে মাটি ফেলে জমি ভরাট করে রাস্তাটিকে গভীর নালায় পরিনত করেছে।

আমরা বাঁধা দিলে ইউনুস হাওলাদার জানান সরকারি হালট থেকে মাটি কেটে নিচ্ছি কারো ব্যক্তিগত জমি থেকে মাটি কাটছিনা। এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে একাধীকবার স্থানীয় চেয়ারম্যান সেলিম হাওলাদারকে বিষয়টি অবগত করলেও চেয়ারম্যান বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। ইউনুস হাওলাদারের কাছে অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটি আমার নিজস্ব জমি। আমি আমার জমি থেকে মাটি কেটেছি।  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল নোমান বলেন, ইউনিয়ন তহশিলদারের সঙ্গে কথা বলে তদন্ত সাপেক্ষে এবিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)