শিরোনাম:
ভোলা, বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮

ভোলার সংবাদ
শুক্রবার ● ২ জুন ২০১৭
প্রথম পাতা » আইন ও অপরাধ » লালমোহনে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ
প্রথম পাতা » আইন ও অপরাধ » লালমোহনে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ
৩৯৪ বার পঠিত
শুক্রবার ● ২ জুন ২০১৭
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

লালমোহনে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

লালমোহনে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

বিশেষ প্রতিনিধি • লালমোহনে মাহামুদা মেহেরে তিথি (২৬) নামের এক গৃহবধুকে যৌতুকের দাবিতে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গৃহবধুর লাশ লালমোহন হাসপাতালের বারান্দায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় স্বামীর বাড়ির লোকজন। বৃহস্পতিবার রাতে লালমোহন পৌর শহরের উত্তর বাজার নামক স্থানে শহরের মুদি ব্যবসায়ী আজগর আলীর বাসায় এ ঘটনা ঘটে। থানা পুলিশ খবর পেয়ে ভোরে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। নিহত তিথি উপজেলার ধলীগৌরনগর ইউনিয়নের করিম হাওলাদার বাড়ির কামাল মাষ্টারের মেয়ে।
তিথির বাবা কামাল মাষ্টার জানান, ২০১৫সালের ২৯মার্চ লালমোহন পৌর শহরের মুদি ব্যবসায়ী আজগর আলীর ছেলে মেহেদী হাসান রুবেলের সাথে তিথির বিয়ে হয়। বিয়ের পর আসল চেহারা পাল্টে যৌতুকের জন্য অগ্নিমূর্তী ধারণ করে রুবেল। মোটা অংকের যৌতুকের দাবিতে রুবেল তিথির ওপর চালাতে থাকে একের পর এক অমানুষিক নির্যাতন। এসব নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে তিথি বহুবার আমার বাড়িতে চলে এসেছে। সর্বশেষ গত ২ এপ্রিল  পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে রুবেল তিথিকে মারধর করে। বিষয়টি আমি আমার মুরুব্বীদের জানাই। মৃত্যুর আগে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিথি তার মায়ের কাছে আদো আদো কন্ঠে মোবাইল করে জামাতা রুবেলকে দামী হোন্ডা কিনে দেওয়ার অনুরোধ জানায়। তখনই আমি বুঝতে পাড়ি কিছু একটা ঘটছে।

পরিশেষে রাত ২টার দিকে খবর পাই রুবেলের ভাই জুয়েলসহ আরো দু’জন আমার মেয়ের লাশ হাসপাতালের বারান্দায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকে তিথির স্বামী মেহেদী হাসান রুবেল ও তার পরিবারের লোকেরা গা-ঢাকা দেওয়ায় তাদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। এ ব্যপারে তিথির বাবা কামাল মাষ্টার বাদী হয়ে তিথির স্বামী মেহেদী হাসান রুবেলকে প্রধান আসামী করে লালমোহন থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ন কবির জানান, ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পলাতক থাকায় কাউকে আটক করা যায়নি। তবে তাদের ধরার জন্য পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে।

---

এদিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি মো সাইদুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় অভিযুক্ত মেহেদি হাসান রুবেলকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বহিস্কার করা হল।

শিএস/আরআই





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)