শিরোনাম:
●   লালমোহনে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীকে চড় মারলেন আ’লীগের সম্পাদক ●   ভোলায় রিমালের আঘাতে ঘরচাপায় নিহত ৩, আহত ১০, ঘর বাড়ি বিধ্বস্ত, বেড়িবাঁধ ধ্বস প্লাবিত, অন্ধকারে জেলাবাসী ●   লালমোহনের ধলীগৌরনগর ইউপিতে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মাকসুদুর রহমান ●   লালমোহনে ডিএসবির এসআইকে পেটালেন শালিক প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা ●   ভোলায় তিন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ইউনুছ, মনজুর আলম, জাফর উল্যাহ নির্বাচীত চেয়ারম্যান ●   ভোলার কর্ণফুলী-৩ লঞ্চে চাঁদপুরের মোহনায় অগ্নিকাণ্ড ●   উদ্ভাস-উন্মেষ-উত্তরণ এখন দ্বীপ জেলা ভোলায় ●   ভোলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আ’লীগের সমর্থিত প্রার্থী বশীর উল্লাহ সভাপতি, সম্পাদক মাহাবুবুল হক লিটু নির্বাচিত ●   ভোলা জেলা প্রশাসকের সাথে আইনজীবী সমিতির মতবিনিময় ●   চরফ্যাশনে দুর্বৃত্তদের আগুনে পুড়লো চট্টগ্রামগামী বাস
ভোলা, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ভোলার সংবাদ
বুধবার ● ২৯ মে ২০১৯
প্রথম পাতা » জাতীয় » নদী গর্ভে বিলীন হচ্ছে দু’শ বছরের প্রাচীন ইলিশের দ্বীপ ঢালচর
প্রথম পাতা » জাতীয় » নদী গর্ভে বিলীন হচ্ছে দু’শ বছরের প্রাচীন ইলিশের দ্বীপ ঢালচর
৬৮২ বার পঠিত
বুধবার ● ২৯ মে ২০১৯
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

নদী গর্ভে বিলীন হচ্ছে দু’শ বছরের প্রাচীন ইলিশের দ্বীপ ঢালচর

---

এম আমির হোসেন, চরফ্যাশন প্রতিনিধি: বঙ্গোপসাগর, মেঘনা, বুড়া গৌরাঙ্গা নদীর ভয়াল ছোবলে চরফ্যাশনের দুশত বছরের পুরনো বিচ্ছিন্ন দ্বীপ ঢালচর দিনের পর দিন বিলীন হয়ে যাচ্ছে বসত-ভিটা, ফসলি জমি, স্কুল, মাদ্রাসা, মসজিদও মৎস্য আড়ৎসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা।

তীব্র ভাঙনের কবলে গত ১৫ দিনে প্রায় শত শত ঘরবাড়ি বিলীন হয়ে গেছে। আর এসব বসত-ভিটা হারানো মানুষগুলো খোলা আকাশের নিচে মনবেতর দিন কাটাচ্ছে। তারা আশ্রয়ের কোন ঠিকানা পাচ্ছে না। তাদের দিন কাটছে অনেক কষ্টে। ভাঙনের তীব্রতায় আতঙ্ককে দিনাতিপাত করছে ঢালচরের জেলে পল্লীর বাসিন্দারা।

ঢালচরবাসীর সাথে আলাপ করে জানা গেছে, দ্বীপ জেলার এক তৃতীয়াংশ মৎস্য আয়ের উৎস হচ্ছে ঢালচর। নদী সাগরে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করে চলছেন এখানকার ৩০ হাজার মানুষ। মাছের ওপর নির্ভরশীল হয়ে বেকারত্ব দুর করার চেষ্টা চললেও এসব মানুষের স্বপ্ন আশা ভেঙে চুরমার করে দিচ্ছে নদী সাগরের ভয়াবহ ভাঙন। এলাকাবাসীর দেওয়া তথ্য মতে, গত মাসে ১টি বৃহৎ বাজার, ৪টি গুচ্ছগ্রাম, ২শতাধিক ঘর-বাড়ি, ১টি মাদ্রাসা, ২টি মসজিদ, ৫টি পুকুর, ১টি ফরেস্ট অফিস, ২৫০ টি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান শতাধিক একর ফসল জমি বিলীন হয়ে গেছে। চলতি শীত মৌসুমেও ভয়াবহ ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। এখন ভাঙনের মুখে পড়েছে ২টি গুচ্ছ গ্রাম, ২টি মৎস্য আড়ৎ, একটি পুলিশ ফাঁড়ি, ৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, একটি কোয়াটার, রেস্টহাউজ , একটি ফরেস্ট অফিস এবং হ্যালিপেডসহ অসংখ্য ঘর-বাড়ি। ভাঙন রোধ কল্পে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া না হলে পুরো ঢালচর বিলীন হওয়ার আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।

ক্রমেই ছোট হয়ে আসছে দুশত বছরের প্রাচীন দ্বীপটি। ভাঙনের ফলে এক তৃতীয়াংশ বিলীন হয়ে যাওয়ায় চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন ঢালচরবাসী। পুরো জনপদ ভেঙে গেলে তারা কোথায় আশ্রয় নেবে সে চিন্তায় দিশেহারা তারা। গুচ্ছ গ্রামের বাসিন্দা মনোয়ারা, সকিনা বিবি রাবেয়া বলেন,‘বর্ষা মৌসুমেও নদীতে ঘর-বাড়ি বিলীন হয়ে যায়। বহু কষ্ট করে নতুন ঘর তুলেছি। কিন্তু এখন আবার ভাঙন চলছে। এখন আর কোথাও আশ্রয় নেওয়ার জায়গা নেই। ঢালচরের বাসিন্দা সেকান্দার, নিরব, শাহে আলম বলেন, “যেভাবে ভাঙন চলছে। ভাঙন অব্যাহত থাকলে সাগরে বিলীন হয়ে যাবে পুরো ঢালচর। ঢালচরের মৎস্য ব্যবসায়ী মাহাবুবুর রহমান বলেন,“ঢালচরকে ভাঙনের হাত  থেকে রক্ষার দাবিতে কিছুদিন আগে আমরা মানববন্ধন বিক্ষোভ মিছিলসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছিকিন্তু আজো কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

ঢালচর ইউপির চেয়ারম্যান আবদুস ছালাম হাওলাদার বলেন, ঢালচরে বর্তমানে প্রধান সমস্যা রয়েছে নদী ভাঙন কবল থেকে রোধ করা। আমি সকল মহলকে বিষয়টি অবগত করিয়েছি। এখানে প্রায় ২শতাধিক পরিবার নদী ভাঙন কবলে পড়ে ছিন্নমূল হিসাবে রয়েছে। বন বিভাগের জমি খালি পড়ে রয়েছে। সরকার পরিবার গুলোকে বন্দোবস্তের ব্যবস্থা করলে পরিবার গুলোকে মাথা গুজার ঠাই পেত।

ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড ডিভিশন- নির্বাহী প্রকৌশলী কাউছার আহম্মেদ বলেন, এই বিষয় স্থানীয় জাতীয় সাংসদ সদস্যকে জানানো হয়েছে। তিনি চরফ্যাশন-মনপুরার বিষয়ে আন্তরিক।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রুহুল আমীন বলেন, “ঢালচরের নদী ভাঙন রোধ কল্পে আপাতত কোনো প্রকল্প আছে কিনা আমার জানা নেই। বিষয়টি পানি উন্নয়ন বোর্ডের। ভাঙনের মুখে পড়া স্থাপনাগুলো আমরা অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছি।

এদিকে, সহায় সম্বল হারিয়ে দিশেহারা ভাঙন কবলিত এলাকার মানুষ। প্রাকৃতিক দুর্যোগের সঙ্গে লড়াই করে বেঁচে থাকা মানুষ গুলো ভাঙন রোধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

-এফএইচ





জাতীয় এর আরও খবর

ভোলায় রিমালের আঘাতে ঘরচাপায় নিহত ৩, আহত ১০, ঘর বাড়ি বিধ্বস্ত, বেড়িবাঁধ ধ্বস প্লাবিত, অন্ধকারে জেলাবাসী ভোলায় রিমালের আঘাতে ঘরচাপায় নিহত ৩, আহত ১০, ঘর বাড়ি বিধ্বস্ত, বেড়িবাঁধ ধ্বস প্লাবিত, অন্ধকারে জেলাবাসী
ভোলার কর্ণফুলী-৩ লঞ্চে চাঁদপুরের মোহনায় অগ্নিকাণ্ড ভোলার কর্ণফুলী-৩ লঞ্চে চাঁদপুরের মোহনায় অগ্নিকাণ্ড
ভোলায় চারটি সহ সারাদেশে ১৫০ সেতু উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী ভোলায় চারটি সহ সারাদেশে ১৫০ সেতু উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী
ভোলায় ৩৩৫ কোটি টাকার শহর রক্ষা বাঁধ এখন মরণ ফাঁদ! ভোলায় ৩৩৫ কোটি টাকার শহর রক্ষা বাঁধ এখন মরণ ফাঁদ!
তজুমদ্দিনে প্রধানমন্ত্রীর উপহার মুজিববর্ষের ঘর নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ তজুমদ্দিনে প্রধানমন্ত্রীর উপহার মুজিববর্ষের ঘর নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ
ভোলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শ্বশুর-জামাইসহ নিহত-৩ ভোলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শ্বশুর-জামাইসহ নিহত-৩
ভোলায় বাস ও অটোরিকশা সংঘর্ষে দুই কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ৪ ভোলায় বাস ও অটোরিকশা সংঘর্ষে দুই কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ৪
ভোলা-বরিশাল রুটে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ, এমভি আওলাদ লঞ্চে ভাংচুরের অভিযোগ ভোলা-বরিশাল রুটে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ, এমভি আওলাদ লঞ্চে ভাংচুরের অভিযোগ
ভোলায় ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের তাণ্ডবে সহস্রাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, নিহত ৪, নৌযান চলাচল শুরু ভোলায় ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের তাণ্ডবে সহস্রাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, নিহত ৪, নৌযান চলাচল শুরু
ভোলায় সিত্রাংয়ের প্রভাবে জনজীবন বিপর্যস্ত, ৭ নম্বর সংকেত, নৌযান চলাচল বন্ধ, বিদ্যুৎ বিছিন্ন,৭৪৬ আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত ভোলায় সিত্রাংয়ের প্রভাবে জনজীবন বিপর্যস্ত, ৭ নম্বর সংকেত, নৌযান চলাচল বন্ধ, বিদ্যুৎ বিছিন্ন,৭৪৬ আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

© 2024 দ্বীপের সাথে ২৪ ঘণ্টা Bholar Sangbad, সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।