শিরোনাম:
●   ভোলায় অজ্ঞাতনামা যুবতীর রহস্যজনক মৃত্যু ●   ভোলায় আ”লীগের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ●   ভোলা জেলা আ’লীগের সভাপতি মজনু মোল্লা, সম্পাদক বিপ্লব ●   সাংবাদিক রফিক সাদীর দুই মেয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মেধা তালিকায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীর পুরস্কারে ভূষিত ●   চরফ্যাশনের মায়া নদী ভাঙ্গন রক্ষায় জিও ব্যাগ স্থাপনের দাবী ●   বেতন ছাড়ায় লাশ হয়ে বাড়ি ফিরলেন ভোলার হাবিবুর ●   ভোলায় বিসিকের গাছ কাটার ব্যাপারে জিজ্ঞেস করায় সাংবাদিকের সাথে উদ্যোক্তার অশোভন আচরণ ●   ভোলায় এনএসআই এর তথ্যের ভিত্তিতে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অনিয়ম করায় তিন পরীক্ষার্থীকে কারাদণ্ড, বহিষ্কার ২ ●   অনুসন্ধানী রিপোর্ট ১: ভোলায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় চাকরির প্রলোভনে কোটি টাকা হাতিয়েছেন প্রতারকরা ●   ভোলায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত, আহত ২
ভোলা, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯

ভোলার সংবাদ
শনিবার ● ১১ জুন ২০২২
প্রথম পাতা » চরফ্যাশন » চরফ্যাশনের মায়া নদী ভাঙ্গন রক্ষায় জিও ব্যাগ স্থাপনের দাবী
প্রথম পাতা » চরফ্যাশন » চরফ্যাশনের মায়া নদী ভাঙ্গন রক্ষায় জিও ব্যাগ স্থাপনের দাবী
১১৯ বার পঠিত
শনিবার ● ১১ জুন ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

চরফ্যাশনের মায়া নদী ভাঙ্গন রক্ষায় জিও ব্যাগ স্থাপনের দাবী

---

চরফ্যাশন প্রতিনিধি: চরফ্যাশন উপজেলার আহম্মদপুর-চরকলমী সীমানা দিয়ে বয়ে যাওয়া ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত মায়া ব্রীজ হুমকীর মুখে পড়েছেন। নদী ভাঙ্গণ কবলিতে ব্রীজ স্থাপনের গোড়ায় পৌছে গেছে। দ্রুত তার বিহীত ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে যে কোন সময় ব্রীজটি ভেঙ্গে যাওয়ার আশঙ্কায় ব্রীজ রক্ষার জন্যে জিও ব্যাগ প্রদানের দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণাঞ্চলের সাধারণ মানুষের

যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়ণের জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম ইসলাম জ্যাকব এর একান্ত প্রচেষ্টায় ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক মায়া ব্রীজ স্থাপিত করেছেন। উদ্বোধন করে যাতায়াত

কার্যক্রম উন্নত হচ্ছে। এলজিইডির মাধ্যমে ব্রীজটি নির্মাণ করাতে

চরকলমীর আঞ্জুরহাট বাবুর হাট মজিবনগরের সাথে চরফ্যাশন-ভোলা

সাথে বাস যোগাযোগ সুগম হয়েছে। এতে পাচ্ছেন যাত্রীরা

যাতায়াত সুবিধা। বর্তমানে মায়া নদী ভাঙ্গনের ফলে হুমকীর মুখে

পড়েছে মায়া ব্রীজটি।

স্থানীয় আহম্মদপুর গ্রামের সৈয়দ আহম্মেদ জানান, এত টাকা

ব্যয়ে মায়া ব্রীজ এমপি মহোদয় স্থাপন করেছেন। মায়া নদী ভাঙ্গার কবলিত হয়ে অনেকের জমি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আমরা রক্ষাপেতে এমপি ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি।

চরফ্যাশন পানি উন্নয়ণ বোর্ডের বিভাগীয় প্রকৌশলী মিজানুর

রহমান বলেন, আমি ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছি। নদী ভাঙ্গার ফলে ব্রীজটি ঝুঁকিতে রয়েছে। ব্রীজটি এলজিইডি করেছেন। আমাদেরকে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে লিখিত ভাবে জানালে আমরা বরাদ্দের ব্যবস্থা করব।

উপজেলা প্রকৌশল অফিস এলজিইডির হিসাব বিভাগের

কর্মকর্তা মো ফরুক বলেন, মায়া  নদী ভাঙ্গব রোধে সরকারি ভাবে বরাদ্দ হয়েছে এবং টেন্ডারও হয়ে গেছে। বর্তমানে কাজ চলমান রয়েছে।


-এমএএফএইচ/ এফএইচ





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)