শিরোনাম:
ভোলা, বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ৬ মাঘ ১৪২৮

ভোলার সংবাদ
বৃহস্পতিবার ● ১৩ জানুয়ারী ২০২২
প্রথম পাতা » জেলার খবর » মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজীর উপর চেয়াম্যান কর্তৃক হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল
প্রথম পাতা » জেলার খবর » মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজীর উপর চেয়াম্যান কর্তৃক হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল
৩২ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার ● ১৩ জানুয়ারী ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজীর উপর চেয়াম্যান কর্তৃক হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

---

স্টাফ রিপোর্টার: ভোলা জেলার বিশিষ্ট আলেমে ভোলা গোরস্থান মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক, ইসলামী আন্দোলন নেতা আলহাজ্ব মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজী সহ স্থানীয় আরো কয়েকজন আলেমের উপর গত ০৩/০১/২২ তারিখ সদর উপজেলার ১২নং উত্তর দিগলদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন মুনসুর তার সন্ত্রাসী ক্যাডার বাহীনী কর্তৃক সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ বিচার দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে
জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ ভোলা উত্তর শাখার আয়োজনে বুধবার সকাল ১১ টায় বরিশাল দালান থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে শহর এলাকা প্রদক্ষিণ করে নতুন বাজার এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ওলামা মাশায়েখ আইম্মার পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মুফতি ইয়াছিন নবীপুরীর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন জাতীয় ওলামা মাশায়েখ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মোঃ মিজানুর রহমান, জমিয়াতুল মোদারেছিনের মুসলিম ঐক্য পরিষদের ভোলা জেলা সাধারণ সম্পাদক, ভোলা দারুল হাদিস কামিল মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা মোবাশ্বিরুল হক নাঈম, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন কেন্দ্রীয় নেতা আলহাজ্ব মাওলানা ওবায়েদুর রহমান বিন মোস্তফা, জাতীয় ঈমান আকিদা পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মীর বেলায়েত হোসেন, ভোলা জেলা ঈমান আকিদার সাধারণ সম্পাদক মাওলানা তাজউদ্দিন ফারুকী, আলহাজ্ব মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজী, ভোলা সদর উপজেলার জমিয়াতুল মোদারেছিনের সভাপতি মাওলানা আব্দুল লতিফ সাহেব, ইসলামী আন্দোলন ভোলা জেলা উত্তর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা তরিকুল ইসলাম তারেক প্রমুখ।
এসময় বক্তারা বলেন, গত ০৩/০১/২২ তারিখে একটি দ্বীনি দাওয়াতে গিয়ে সেখান থেকে ফেরার পথে মুনসুর চেয়ারম্যার তার নিজ হাতে লাঠী দিয়ে মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজীকে পিটিয়ে তার মোটর সাইকেলটি ভেঙ্গে পুকুরে ফেলে দেয় এবং তার সাথে থাকা মাওলানা সাদেকুর রহমান, মাওলানা আনোয়ার হোসেন রুমি, মুফতি এমরান হোসাইন, মাওলানা আব্বাস উদ্দিনকে পিটিয়ে আহত করা হয়। প্রতিবাদ সভায় ভোলা জেলার সকল মুসলিম তৌহিদি জনতার পক্ষে ভোলা জেলা জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ ঘটনার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন ৭২ ঘন্টার মধ্যে সন্ত্রাসী মুনসুর চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করে তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের আইনে মাধ্যমে কঠিন শাস্তির আওতায় বিচার দাবী করেন।
এছাড়া বক্তারা হুশিয়ারী উচ্চার করে বলেন, ভোলায় যদি আর কোন আলেম ওলামাকে অপমান-অপদস্ত করা হয় তাহলে ভোলার আলেম সমাজ কঠিন কর্মসুচী দিতে বাধ্য হবে। প্রতিবাদ সভা শেষে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন ভোলা দারুল হাদিস কামিল মাদ্রাসার ফকিহ মুফতি আহাম্মদ উল্লাহ। উল্লেখ্য, ঘটনায় এবং আজকের সভার উপস্থিতি ভোলা জেলার সকল আলেম ওলামা, মুসলিম জনমনে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করছে এলাকার সুধী জনরা।
অপরদিকে উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন মনসুর বলেন, গত জানুয়ারী ইউপি নির্বাচনের আগে পোষ্টার টাঙ্গানো নিয়ে স্থানীয় লীগ এক কর্মীর সাথে মোমতাজির লোকজনের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। বিষয়টি নিয়ে বাংলাবাজার ফাড়ির দারোগা কাজল কয়েকজন কনস্টেবল নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। আমাকে জড়িয়ে যে কথা ছড়ানো হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। ধরনের কোন ঘটনা আমার সাথে ঘটেনি। কিন্তু দুঃখের বিষয়, গত জানুয়ারীর সৃষ্ট ঘটনা নিয়ে বুধবার (১২ তারিখ) এসে মিছিল-মিটিং করা উদ্দেশ্য প্রনোদিত বুঝা যায়

-রাজ





আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)